পেশাগত কারণে যে সমস্ত পেশার মানুষকে নানা মানুষের সংস্পর্শে আসতে হয় , যখন সেইসব পেশার কোন মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয় , তখন সংক্রমণের হার বেড়ে যাবার সম্ভাবনা তৈরি হয়। এই ধরনের পেশার মধ্যে পড়ে চিকিৎসক, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মী কিংবা বিমান ক্রুরাও।
এবার বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের একজন কেবিন ক্রু করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। তিনি একজন জুনিয়র পার্সার। তার বাসা মিরপুর এলাকায়।

জানা গেছে, তিনি গত ২৭ শে মার্চ ওই কেবিন ক্রু ঢাকা-লন্ডন-ঢাকা রুটের ফ্লাইটে দায়িত্ব পালন করেছেন। লন্ডন থেকে ফেরার পর পরই তিনি জ্বরে আক্রান্ত হন। এরপর কাশি, গলা ব্যথা ও শ্বাসকষ্টে ভুগতে শুরু করেন। গত সপ্তাহে তার করোনাভাইরাস পরীক্ষা করা হলে রবিবার রিপোর্ট দেয়। রিপোর্টে করোনা পজেটিভ ধরা পড়ে। তাকে রাজধানীর কুর্মিটোলা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। তাবে তার শারীরিক অবস্থা ততটা গুরুতর নয়।

একইসঙ্গে তার পরিবারের সব সদস্য ও ওই ফ্লাইটের সব ক্রুদের কোয়ারেন্টাইনে রাখার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। এদিকে ফ্লাইট শেষে কেবিন ক্রুদের কোয়ারেন্টাইনে না পাঠানোয় আরো অনেকে করোনা আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা করছেন।