বাংলাদেশের অন্যতম জাতীয়তাবাদী রাজনৈতিক দল বিএনপি। স্বাধনীনতার পর থেকে বেশ কয়কেবার এই দলটি বাংলাদেশের সরকারের দায়িত্ব পালন করেছে। তবে বর্তমান সময়ে দীর্ঘ সময় ধরে এই দলটি ক্ষমতার বাইরে রয়েছে। এমনকি রাজনৈতিক ভাবে বিভিন্ন ধরনের মা/ম/লা/র শিকার হয়েছে এই দলের চেয়ারপারসন সহ দলীয় অনেক নেতাকর্মীরা। সম্প্রতি এই মা/ম/লা প্রসঙ্গে এক বক্তব্য প্রদান করেছেন দলটির যুগ্ম-মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল।
মা/ম/লা বিএনপি নেতাকর্মীদের গলার মালা বলে মন্তব্য করেছেন দলটির যুগ্ম-মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল। তিনি বলেছেন, ’মা/ম/লা হচ্ছে আমাদের গলার মালা। বেগম খালেদা জিয়া থেকে শুরু করে তারেক রহমানের নামে এই মা/ম/লা আমরা ফুলের মালা হিসেবে বরণ করে নিয়েছি। যতদিন বেঁচে থাকব এই মা/ম/লা গলার মালা হিসেবে রাখব। যতক্ষণ পর্যন্ত না আওয়ামী লীগের গলায় ফেরত দিতে না পারব, ততদিন পর্যন্ত আমাদের আ/ন্দো/লন চলবে।’ বুধবার (১৩ জানুয়ারি) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ঢাকা মহাগর বিএনপির উদ্যোগে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে গ্রে/ফ/তা/রি পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে আয়োজিত মানববন্ধনে তিনি এ মন্তব্য করেন। মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল বলেন, মানববন্ধন যে যুবক ভাইয়েরা বসে আছেন, একটা কথা জবাব দেন তো— তারেক রহমান নামের কোনো বিশেষণ লাগানোর প্রয়োজন আছে কিনা। বরং এই সরকারের নামের পরে অনেক বিশেষণের দরকার আছে। আমরা যে কথাগুলো বারবার বলি, সেই কথাগুলো তাদের মধ্যেই এখন জোরেশোরে আলোচনা হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের ভাই বললেন— নির্বাচন নিয়ে টালবাহানা হচ্ছে। আওয়ামী লীগ ভোট চুরি করছে, লু/ট/পা/ট করছে। অপরদিকে সাঈদ খোকন বলে— তাপস চোর। আর তাপস বলে— সাঈদ খোকন ডাকাত। এই যে নতুন নতুন বিশেষণ যোগ হচ্ছে, এগুলো তো আমরা করছি না। খোদ আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরাই করছে। আমাদের নিরাপত্তা ব্যবস্থা করেছেন তার চেয়ে বেশি জরুরি হচ্ছে আপনাদের নিজেদের মধ্যে দ্বন্দ্ব মিটানো। এ সময় আইনশৃঙ্খলা বা/হি/নী/র উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, মেজর সিনহা হ/ত্যা/কা/ণ্ডে/র পরে পু/লি/শ মা/ম/লা করেছে, সেটা চূড়ান্ত প্রতিবেদন দিয়েছে। সেই মা/ম/লা/য় পু/লি/শ আবার নারাজি দিয়েছে। এদিকে ঢাকার অন্য একটি হ/ত্যা মা/ম/লা/র ব্যাপারে পি/বি/আ/ই ফাইনাল দিয়েছে, আবার সেটা নারাজিও দিয়েছে। এই যে নিজেদের মধ্যে বিশেষণ এক এক করে বের হয়ে আসছে, এটা থেকে দৃষ্টি সরানোর জন্য চাল-ডাল-তেল-লবণ এর দাম বাড়ানো হয়েছে। আবার এই জায়গা থেকে জনগণের মাথা সরানোর জন্য মামলার সূত্রপাত করা হয়েছে।

এই দলটির প্রতিষ্ঠাতা বাংলাদেশের সাবেক সে/না প্রধান জিয়াউর রহমান। অবশ্যে তিনি বাংলাদেশের বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ন পদে দায়িত্ব পালন করেছেন। বর্তমান সময়ে এই দলটির চেয়ারপারসনের দায়িত্ব পালন করছেন তার স্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ে। অবশ্যে তিনি জিয়া অরফানেজ ট্রাষ্ট দূর্নীতির মা/ম/লা/য় সাজা ভোগ করছেন। এবং বর্তমান সময়ে জামিনে রয়েছেন।