সমগ্র দেশ জুড়ে অসংখ্য হোটেল এবং রেস্তোরা রয়েছে। তবে অধিকাংশ ক্ষেত্রেই কিছু মুলাফা লোভী অসৎ ব্যক্তি নিজেদের স্বার্থ লাভের আশায় অস্বাস্থ্য পরিবেশ এবং নানা অনিয়মের মধ্যে দিয়ে এই সকল হোটেল এবং রেস্তোরা পরিচালনা করছে। তবে এবার এই সকল অনিয়ম প্রতিরোধে নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষকে কঠোর নজরদারির নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
নিরাপদ খাদ্যের নিশ্চয়তায় শুধু ঢাকা নয় সারাদেশের হোটেল রেস্তোরাগুলোতে নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষকে নজরদারির নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বৃহস্পতিবার সকালে জাতীয় নিরাপদ খাদ্য দিবস উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি এই কথা জানান। প্রধানমন্ত্রী বলেন, সরকার দেশের মানুষের খাদ্য চাহিদা পূরণের পাশাপাশি পুষ্টি চাহিদা পূরণে কাজ করে যাচ্ছে। এছাড়াও প্রত্যান্ত অঞ্চলের মানুষের ভাগ্য উন্নয়নে সরকার নানা উদ্যোগ নিয়েছে। এসব উদ্যোগের ফলে মানুষের জীবন-মানের উন্নয়ন সাধিত হয়েছে বলেও জানান তিনি। এছাড়া গবেষণা ছাড়া কোন বিষয়ে উৎকর্ষ সাধন করা যায় না। তাই খাদ্য উৎপাদন বাড়াতে সরকার গবেষণায় গুরুত্ব দিচ্ছে বলে জানান প্রধানমন্ত্রী।

অস্বাস্থ্য পরিবেশ এবং পচাঁ-বাসি খাবার খেয়ে মানুষ নানা ভাবে বিভিন্ন ধরনের রোগের শিকার হচ্ছে। বর্তমান সময়ে খাদ্যদ্রব্যতে ভেজাল দিচ্ছে কিছু অসাধু ব্যক্তি। তবে দেশের জন গনের স্বাস্থ্য নিরাপত্তায় কঠোর অবস্থানে রয়েছেন বর্তমান সরকার। এবং গ্রহন করেছেন নানা ধরনের পদক্ষেপ।