দেশে হঠাৎ করেই মারাত্মক আকারে বৃদ্ধি পেয়েছে প্রাননাশকারী কোভিড১৯ ভাইরাসের সংক্রমন। অবশ্যে শুধু বাংলাদেশেই নয় বিশ্বের বেশ কিছু দেশে এই ভাইরাসের সং/ক্র/ম/ন তীব্র আকার ধারন করেছে। ইতিমধ্যে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্র প্রধানরা এই ভাইরাস মোকাবিলায় নানা ধরনের পদক্ষেপ গ্রহন করেছে। এবার এই ভাইরাস সম্পর্কে বেশ কিছু কথা জানিয়েছেন ডা. এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী।
সাবেক রাষ্ট্রপতি মেডিসিন বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডা. এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী বলেছেন, ’মার্চের শুরুতেই করোনা সং/ক্র/ম/ণ আবার বাড়তে শুরু করেছে। কিন্তু স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছে না। হাটে বাজারে, বিপণিবিতানে মাস্ক ছাড়া চলাফেরা করছে মানুষ। করোনা থেকে বাঁচতে মাস্ক ব্যবহারের বিকল্প নেই। আমি মনে করি যথাযথভাবে মাস্ক ব্যবহার করলে ৮০-৯০ ভাগ করোনা সং/ক্র/ম/ণ নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব।’ গতকাল তিনি বলেন, ’প্রতিদিনই করোনা আক্রান্ত রেকর্ড ছাড়াচ্ছে। জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটির দিকনির্দেশনা অবশ্যই আমাদের মানতে হবে। বিশেষ করে সবাইকে বাধ্যতামূলকভাবে মাস্ক ব্যবহার করতে হবে। আমি মনে করি মাস্ক ব্যবহার করলেই করোনা নিয়ন্ত্রণ অনেকাংশেই সম্ভব। সরকারকে এ ব্যাপারে কঠোর পদক্ষেপ নিতে হবে। সবাইকে বলব আপনারা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা-ঘোষিত স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন। সামাজিক দূরত্ব মেনে চলুন। প্রয়োজনে বাইরে গেলে সাবান দিয়ে হাত পরিষ্কার করুন। করোনা সং/ক্র/ম/ণ কমে আসায় সামাজিক অনুষ্ঠান, পিকনিক, কনসার্টের হিড়িক পড়ে গিয়েছিল। ভিড়, গাদাগাদিতে উপেক্ষিত ছিল স্বাস্থ্যবিধি। এর ফলে সংক্রমণ হার বেপরোয়াভাবে বাড়তে শুরু করেছে।’

বাংলাদেশে গত কয়েক দিনেই করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত এবং মৃ"ত্যুবরনের সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে। শুধু তাই নয় দেশে এই ভাইরাসটি দেখা দেওয়ার শুরুর দিকেও এমন আক্রান্ত এবং মৃ"ত্যুবরন হয়নি। দেশে এখন পর্যন্ত ভাইরাসটিতে মোট আক্রান্ত হয়েছে ৬ লাখ ২৪ হাজার ৫৯৪ জন। এবং মৃ"ত্যুবরন করেছে ৯ হাজার ১৫৫ জন।
সরকারকে কঠোর পদক্ষেপ নিতে হবে: বি. চৌধুরী
Logo
Print

Saturday, 03 April 2021 জাতীয়

 

দেশে হঠাৎ করেই মারাত্মক আকারে বৃদ্ধি পেয়েছে প্রাননাশকারী কোভিড১৯ ভাইরাসের সংক্রমন। অবশ্যে শুধু বাংলাদেশেই নয় বিশ্বের বেশ কিছু দেশে এই ভাইরাসের সং/ক্র/ম/ন তীব্র আকার ধারন করেছে। ইতিমধ্যে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্র প্রধানরা এই ভাইরাস মোকাবিলায় নানা ধরনের পদক্ষেপ গ্রহন করেছে। এবার এই ভাইরাস সম্পর্কে বেশ কিছু কথা জানিয়েছেন ডা. এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী।
সাবেক রাষ্ট্রপতি মেডিসিন বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডা. এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী বলেছেন, ’মার্চের শুরুতেই করোনা সং/ক্র/ম/ণ আবার বাড়তে শুরু করেছে। কিন্তু স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছে না। হাটে বাজারে, বিপণিবিতানে মাস্ক ছাড়া চলাফেরা করছে মানুষ। করোনা থেকে বাঁচতে মাস্ক ব্যবহারের বিকল্প নেই। আমি মনে করি যথাযথভাবে মাস্ক ব্যবহার করলে ৮০-৯০ ভাগ করোনা সং/ক্র/ম/ণ নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব।’ গতকাল তিনি বলেন, ’প্রতিদিনই করোনা আক্রান্ত রেকর্ড ছাড়াচ্ছে। জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটির দিকনির্দেশনা অবশ্যই আমাদের মানতে হবে। বিশেষ করে সবাইকে বাধ্যতামূলকভাবে মাস্ক ব্যবহার করতে হবে। আমি মনে করি মাস্ক ব্যবহার করলেই করোনা নিয়ন্ত্রণ অনেকাংশেই সম্ভব। সরকারকে এ ব্যাপারে কঠোর পদক্ষেপ নিতে হবে। সবাইকে বলব আপনারা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা-ঘোষিত স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন। সামাজিক দূরত্ব মেনে চলুন। প্রয়োজনে বাইরে গেলে সাবান দিয়ে হাত পরিষ্কার করুন। করোনা সং/ক্র/ম/ণ কমে আসায় সামাজিক অনুষ্ঠান, পিকনিক, কনসার্টের হিড়িক পড়ে গিয়েছিল। ভিড়, গাদাগাদিতে উপেক্ষিত ছিল স্বাস্থ্যবিধি। এর ফলে সংক্রমণ হার বেপরোয়াভাবে বাড়তে শুরু করেছে।’

বাংলাদেশে গত কয়েক দিনেই করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত এবং মৃ"ত্যুবরনের সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে। শুধু তাই নয় দেশে এই ভাইরাসটি দেখা দেওয়ার শুরুর দিকেও এমন আক্রান্ত এবং মৃ"ত্যুবরন হয়নি। দেশে এখন পর্যন্ত ভাইরাসটিতে মোট আক্রান্ত হয়েছে ৬ লাখ ২৪ হাজার ৫৯৪ জন। এবং মৃ"ত্যুবরন করেছে ৯ হাজার ১৫৫ জন।
Template Design © Joomla Templates | GavickPro. All rights reserved.